spot_img
বৃহস্পতিবার, মে ৩০, ২০২৪
spot_img

সোনারগাঁওয়ে ৭ বছরের শিশুকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা

spot_img

সোনারগাঁওয়ে ৭ বছরের শিশুকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা

লাইভ সোনারগাঁও ডেস্ক:

নারায়াণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে বাড়িওয়ালার সঙ্গে ঝগড়ার জেরে তার ৭ বছরের কন্যাশিশুকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে ভাড়াটিয়া।

এ ঘটনায় রবিবার (২১ এপ্রিল) শিশুটির মোহাম্দ সুমন বাবা বাদী হয়ে ভাড়াটিয়া সঞ্জয় কুমার পাল (৩৩) ও তার বাবা মনি শংকর পাল (৬০) নামে ২ জনকে আসামি করে সোনারগাঁও থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বাড়িচিনিশ এলাকার মৃত নায়েব আলী প্রধানের ছেলে সুমন প্রধানের ৭ বছরের শিশু কন্যা দোয়াকে আগুন লাগিয়ে হত্যা করার চেষ্টা করেন তার ভাড়াটিয়া সঞ্জয় কুমার পাল ও তার বাবা মনিশংকর পাল।

গত দুই বছর ধরে যশোহর জেলার মনিরামপুর থানার ঢাকুরিয়া এলাকার সুঞ্জয় কুমার পাল তার স্ত্রী-পরিবার নিয়ে সুমন প্রধানের পঞ্চমতলা ভবনের ৪র্থ তলায় ভাড়া থাকছেন।

গত ছয় মাস ধরে ভাড়া না দিয়ে তালবাহানা করে আসছে। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর সূত্র ধরে গত ১২ মার্চ সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বিবাদী সুমনের ৭ বছরের শিশুকন্যা দোয়াকে ডেকে নিয়ে দরজা লাগিয়ে মারধর করে শরীরে নিলাফুলা জখম করে দেশলাই ম্যাচের কাঠি দিয়ে তার জামায় আগুন লাগিয়ে দেয়।

মেয়ের ডাক চিৎকারে বাড়ির মালিক ও আশপাশের লোকজনের সহায়তায় দরজা খুলে গুরুতর আহত অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে ঢাকা শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিট ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনিস্টটিউট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে গত দেড় মাস ধরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কাতরাচ্ছে।

ভুক্তভোগীর পরিবার ও এলাকাবাসী পাষণ্ড সঞ্জয় কুমার পালের দৃষ্টান্তমূল শাস্তি দাবি করেছেন।
এদিকে শিশুকন্যা দোয়ার বাবা সুমন বলেন, মেয়ের চিকিৎসায় ব্যস্ত থাকার কারণে থানায় অভিযোগ করতে বিলম্ব হয়েছে।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁও থানার ওসি বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

spot_img

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সাম্প্রতিক প্রবন্ধসমূহ

spot_img
spot_img