spot_img
শুক্রবার, এপ্রিল ১৯, ২০২৪
spot_img

সোনারগাঁয়ে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে রাস্তা দখলের অভিযোগ রনি মোল্লার বিরুদ্ধে

spot_img

লাইভ সোনারগাঁও ২৪ ডেস্ক;

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের সাতভাই পাড়া এলাকায় জনগণের যাতায়াতের রাস্তা দখল করে বাড়ির গেইট ও দেয়াল নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে রনি মোল্লা নামে এক ভূমিদস্যু ও দলিল জালিয়াতকারী ভেন্ডারের বিরুদ্ধে।

সোমবার সকালে সরজমিনে সাতভাইপাড়া গ্রামে গিয়ে দেখা যায়, বিগত ২৫ থেকে ৩০ বছরের পুরনো রাস্তাটি দিয়ে শতশত সাধারণ মানুষসহ স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা যাতায়াত করে আসছে। স্থানীয় সরকারের একটি প্রকল্পের অধিনে রাস্তাটি পূনরায় নির্মাণের কাজ শুরু হলে ওই এলাকার বাসিন্দা বাসেদ মোল্লার ছেলে ভূমিদস্যু ও দলিল জালিয়াতকারী ভেন্ডার রনি মোল্লা রাতের আধারে বাড়ির গেইট ও দেয়াল তৈরি করে পুরনো রাস্তার সীমানা থেকে ভেতরে ঢুকে প্রায় তিন হাত যায়গা দখল করে নিয়েছে।

সাতভাই পাড়া গ্রামের বাসিন্দা কামরুল ইসলাম জানান, মোল্লা বাড়ির রনি মোল্লা ও বাসেদ মোল্লা রাতের আধারে আমাদের গ্রামবাসির রাস্তাটি দখল করে বাড়ির দেয়াল ও গেইট নির্মাণ করে ফেলেছে। সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেজওয়ান উল ইসলাম নিজে এসে একাধিকবার রাস্তার সীমানা ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দিলেও রনি মোল্লা কোন কর্ণপাত করছেননা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসী জানায়, বাসেদের পোলা রনি মোল্লা আমাদের চলাচলের দীর্ঘদিনের পুরনো রাস্তাটি জোর পূর্বক দখলে নিয়েছে। আমরা প্রতিবাদ করলে আমাদেরকে মামলা হামলাসহ প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে। তারা বলেন, রনি মোল্লা একটি খারাপ প্রকৃতির অর্থ ও জমিলোভি মানুষ। সে এই এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করতে চায়।

এবিষয়ে রনি মোল্লার সাথে মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
জানতে চাইলে রাস্তা নির্মাণের ঠিকাদার মানিক মিয়া বলেন, রনি মোল্লা পুরনো রাস্তাটির প্রায় পুরোটাই দখলে নিয়েছে। সে জন্য আপাতত রাস্তার কাজ বন্ধ রয়েছে। তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনও নিজে গিয়ে রনি মোল্লাকে রাস্তা দখলমুক্ত করে দেয়ার নির্দেশ দিলেও তিনি আমলে নেননি।

সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রেজওয়ান উল ইসলাম জানান, আমরা সরেজমিনে গিয়ে রাস্তার যায়গা দখলমুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছি। তারপরও যদি জনগণের স্বার্থে রাস্তাটি দখলমুক্ত না হয় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

spot_img

সম্পরকিত প্রবন্ধ

সাম্প্রতিক প্রবন্ধসমূহ

spot_img
spot_img